হ্যান্ডসাম কম বয়সী ছেলেদের ভাড়া করে কাছে নিতেন রোমানা

টার্গেট বিত্তশালী। নিজের রূপ যৌবনে আকৃষ্ট করে কাছে টানা। এরপর অর্থ-সম্পদ হাতিয়ে নেয়া। এমনকি হ্যান্ডসাম কম বয়সী ছে’লেদের ভাড়া করে নেন। মেতে ওঠেন উন্মাদনায়। একে একে তিনটি বিয়ে করে হাতিয়ে নিয়েছেন অর্থ-বিত্ত। স্বার্থ হাসিল হলেই ডিভোর্স। তারপর আবার মাঠে নামে নতুন শিকারের খোঁজে।

এমনকি বিত্তশালীকে বাসায় ডেকে অচেতন করে ধারণ করেন ন’গ্ন ছবি। ওই ছবি দিয়েই ব্ল্যাকমেইল করেন। এমন নানা অ’ভিযোগ উঠেছে টিভি অ’ভিনেত্রী ও চলচ্চিত্রের নায়িকা রোমানা ইস’লাম স্বর্ণার বি’রুদ্ধে।

প্রতারণার অ’ভিযোগে মা’মলায় গ্রে’প্তার করা হয়েছে স্বর্ণা ও তার ভা’র্সিটি পড়ুয়া ছে’লে আন্নাফি এবং স্বর্ণার মা আশরাফী আক্তার শেইলীকে। গতকাল জে’লগেটে একদিনের জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেন আ’দালত।

জানা গেছে, একটি রিয়েলিটি শোর মাধ্যমে শোবিজ জগতে মুখ দেখান স্বর্ণা। তিনি ফরিদপুর জে’লা সদরের দক্ষিণ টেপাখোলার এটিএম নজরুল ইস’লামের মে’য়ে।

নিজের রূপ-যৌবনে মুগ্ধতা ছড়াচ্ছিলেন। তার রমণীয় আহলাদে সাড়া দিচ্ছিলেন এক শ্রেণির বিত্তশালীরা। নাট’ক, ফিল্ম, শর্টফিল্মে নিজেকে উপস্থাপন করে বাড়াচ্ছিলেন চাহিদা।

একান্তে সময় দিতে গুলশানের লেক সংলগ্ন একটি পাঁচতারকা হোটেল ও কলকাতার নিউ মা’র্কেট এলাকার ডিকে ইন্টার ন্যাশনাল হোটেলে ছিল আসা-যাওয়া। ধনাঢ্যদের সঙ্গী হিসেবে রাতের পর রাত এই দুটি হোটেলে কাটিয়েছেন স্বর্ণা। কলকাতায় ও ঢাকায় একশ্রেণির বিত্তশালীদের সঙ্গে রয়েছে তার অন্তঃরঙ্গ স’ম্পর্ক।

এ ছাড়াও নিকেতনের একটি ফ্ল্যাটে ছিল নিয়মিত আড্ডা। প্রভাবশালী কয়েক নেতাও রয়েছেন এই তালিকায়। অল্পদিনেই বিপুল অর্থের মালিক হতে বিত্তশালীদের সঙ্গী হতেন তিনি। এই পথের বাধা হিসেবে ২০১৭ সালে নিজ এলাকার ছে’লে তানভীর ইউসুফকে ডিভোর্স দেন এক সন্তানের জননী স্বর্ণা। বিয়ে করে বিপুল অর্থ হাতিয়ে নেন এক আইনজীবীর। এসবই ঘটছিলো আড়ালে।

কথিত রয়েছে বিয়ে করেছিলেন আরেক ট্রাভেল এজেন্সির মালিককেও। যদিও স্বর্ণা এটি স্বীকার করেননি কখনো। সর্বশেষ মাদারীপুরের রাজৈর’র শ্রীকৃষ্ণদি গ্রামের আব্দুল মান্নান মাতুব্বরের পুত্র সৌদি প্রবাসী কাম’রুল হাসানকে বিয়ে করেন তিনি।ধনাঢ্য কাম’রুল অ’ভিযোগ করেছেন, বিয়ে, ব্ল্যাকমেইল স্বর্ণার পেশা। ব্ল্যাকমেইল করে অর্থ-বিত্ত হাতিয়ে নেন এই অ’ভিনেত্রী ও তার পরিবারের সদস্যরা। কাম’রুল অ’ভিযোগ করেন, ন’গ্ন ছবি তুলে ব্ল্যাকমেইল, বিয়ে করে অর্থ আত্মসাৎ তার পেশা। এ বিষয়ে সঠিক বিচার চান তিনি।

মোহাম্ম’দপুর থা’নার ওসি আব্দুল লতিফ জানান, নানা অজুহাতে কাম’রুলের কাছ থেকে এক কোটি ৪৮ লাখ ৬০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন স্বর্ণা। স্বর্ণা ও তার ছে’লে এবং মাকে গ্রে’প্তার করা হয়েছে। স্বর্ণার পাঁচদিনের রি’মান্ড চাওয়া হলে আ’দালত একদিনের জে’লগেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিয়েছেন। উল্লেখ্য, তন্ময় তানসেনের রানআউট ফিল্মে অ’ভিনয়সহ বিভিন্ন নাট’ক, বিজ্ঞাপন ও শর্টফিল্মে অ’ভিনয় করেছেন স্বর্ণা।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *