Home / আর্ন্তজাতিক / রহস্যঘেরা ২০০০ বছরের পুরনো স্টোনহেঞ্জে

রহস্যঘেরা ২০০০ বছরের পুরনো স্টোনহেঞ্জে

প্রতিবছর ২১ জুন ইংল্যান্ডের বহু মানুষ উপস্থিত হন ইংল্যান্ডের স্টোনহেঞ্জে।এটি তৈরি হয়েছিল প্রায় ২০০০ বছর আগে। যেখানে প্রথম চিহ্নিত করা হয় ২১ জুন তারিখটি।

তবে এই ঐতিহাসিক স্তম্ভকে ঘিরে রয়েছে আরও অনেক রহস্য। বছরের এই একটি দিন সূর্যের আলো পৌঁছায় স্টোনহেঞ্জ পাথর বৃত্তের একেবারে মাঝখানে। আর সেই উপলক্ষেই হাজারো মানুষ সেখানে ভিড় জমান।

স্টোনহেঞ্জের নির্মাতা, নির্মাণের উপকরণ এবং নির্মাণকাল নিয়ে যেমন বিতর্কের শেষ নেই, তেমনি রহস্যের শেষ নেই এর কার্যকারণ নিয়েও।

বিজ্ঞানীরা এখনো নিশ্চিত নন ঠিক কী কারণে এটি নির্মাণ করা হয়েছিল। বিখ্যাত ব্রিটিশ পণ্ডিত উইলিয়াম স্টাকলে তার বিখ্যাত এক বইয়ে স্টোনহেঞ্জকে গ্রীষ্মকালীন সূর্যোদয়ের মানমন্দির বলেছেন।

বছরের সবচেয়ে দীর্ঘতম দিন ২১ জুন। দিনটির দৈর্ঘ্য ১৩ ঘণ্টা ৩৬ মিনিট ২ সেকেন্ড। এই দিনে সূর্য তার উত্তরায়ণের সর্বোচ্চ বিন্দুতে অবস্থান করে এবং সবথেকে উত্তরে উদয় হয়। কর্কট রেখায় সূর্যকে মধ্যাহ্নে আকাশের ঠিক মাঝখানে দেখা যায় এদিন। এই দিনে সূর্য সর্বোচ্চ উত্তরে অস্ত যায়।

২১ জুন, উত্তর গোলার্ধের সবচেয়ে বড় দিন। বছরের এ দীর্ঘতম দিনে সূর্য থাকবে মোট ১৩ ঘন্টা ৩৬ মিনিট এক বা দুই সেকেন্ড। সূর্য একটি নির্দিষ্ট সময়ে কর্কটক্রান্তি রেখার ওপর লম্বাভাবে অবস্থান করে।

About rangpur24news

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *