Home / প্রচ্ছদ / বন্দুক যুদ্ধে নিহত সকলেই তালিকা ভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী- রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি

বন্দুক যুদ্ধে নিহত সকলেই তালিকা ভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী- রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি

রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক বিপিএম,পিপিএম বলেছেন- মাদকের ব্যবসার সাথে যেসব গডফাদার যুক্ত রয়েছে, তাদের তালিকা করার কাজ চলছে বন্দুক যুদ্ধে নিহত সকলেই তালিকা ভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী । তিনি বলেন- রংপুর বিভাগের কোন একটি এলাকাতে একজনও যদি মাদক ব্যবসায়ী থাকে তাহলে মাদক বিরোধী অভিযান অব্যাহত রাখা হবে।  এজন্য রংপুর রেঞ্জ এর আওতায় যেসব থানা রয়েছে সেসব থানার অফিসার ইনচার্জদের ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় দিক নিদের্শনা দেয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।
তিনি বলেন, মাদক মুক্ত সমাজ গড়তে হলে আইন শৃঙ্খলার রক্ষার সাথে জড়িত সকল বাহিনী, সুধিজন সহ সমাজের সচেতন ব্যক্তিদের এগিয়ে আসতে হবে। তিনি বলেন, যেভাবে দেশ থেকে জঙ্গিবাদকে নির্মূল করা হয়েছে,সেভাবেই দেশ থেকে মাদক নির্মূল করা হবে।
বুধবার দুপুরে রংপুর পুলিশ হল মিলনায়তনে বাংলাদেশ পুলিশ,রংপুর রেঞ্জ আয়োজিত চলমান মাদক বিরোধী অভিযানের করনীয় ও ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক আলোচনা সভায় সভাপতি হিসেবে বক্তব্য রাখছিলেন রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক।
ডিআইজি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় গত মাসের ১৮ তারিখ থেকে সারা দেশে মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান শুরু করা হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় রংপুর বিভাগের ৮ জেলায় মাদক বিরোধী অভিযান শুরু করা হয়েছে। ইতোমধ্যে রংপুর বিভাগের বিভিন্ন স্থানে বন্দুক যুদ্ধে গত ১২দিনে এ পর্যন্ত ১৬ জন মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। এরমধ্যে পুলিশের হাতে ১৪জন এবং র‌্যাবের হাতে ২জন নিহত হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।  আহত হয়েছে ৬ মাদক ব্যবসায়ী।
এসময় সংবাদ মাধ্যমের কর্মীদের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক মাদক বিরোধী অভিযানে এ পর্যন্ত ১ হাজার ৩০৫ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানান। এছাড়া একই সময়ে মাদকের মামলা দায়ের করা হয়েছে ১ হাজার ৬৪টি এবং ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে বিভিন মেয়াদী সাজা প্রদান করা হয়েছে ২১৭জনকে। রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক র‌্যাব বিজিবি সহ আইন শৃঙ্খলার সাথে জড়িত সকল বাহিনীর সমন্বিত উদ্যোগ নেয়ার ঘোষনা দেন এবং মাদক বিরোধী আরও জোরদার করার দৃঢ প্রত্যয় ব্যক্ত করেন ।  এতে অন্যান্যের মধ্যে রংপুর রেঞ্জ এর অতিরিক্ত ডিআইজি বশির আহমেদ পিপিএম (বার), অতিরিক্ত ডিআইজি মজিদ আলী বিপিএম, রংপুরের পুলিশ সুপার মো: মিজানুর রহমান পিপিএম,দিনাজপুরের পুলিশ সুপার হামিদুল আলম পিপিএম, ঠাকুরগাও পুলিশ সুপার ফরহাত আলী, গাইবান্ধার পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান, লালমনিরহাট জেলার পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক, নীলফামারীর পুলিশ সুপার মো: আশরাফুজ্জামান, কুড়িগ্রাম জেলার পুলিশ সুপার মেহেদুল করীম সহ রংপুর রেঞ্জ ৬১টি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এবং গোয়েন্দা কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

About rangpur24news

Check Also

দিনে ছাপবে ২৫ হাজার ই-পাসপোর্ট

আগামী ১ জুলাই থেকে সর্বাধুনিক ই-পাসপোর্টের যুগে প্রবেশ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এদিন থেকে বিশ্বের সবচেয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *